ছফার হিম্মত নাকি খালেদার ডিসেন্সি, আফসোস এবং উইট

ছফার হিম্মত নাকি খালেদার ডিসেন্সি, আফসোস এবং উইট

নিচে খালেদা জিয়ার লগে ছফার একটা কাহিনি পড়েন। এইটা ছফানাগরেরা গলা উঁচাইয়া কন প্রায়ই, এই নাকি ছফার হিম্মতের গপ্পো। তা ছফার হিম্মত তো আছিলোই, কিন্তু গপ্পোটা তো আরো বেশি খালেদার! খেয়াল করেন, ‘অশিক্ষিত’ খালেদা ‘আতেল’ ছফারে খুবই উইটি জবাব দিছেন। ছফানাগরেরা তো আর ভাবতে নারাজ, কিন্তু ভাবেন তো, খালেদার জবাবে ছফা তখন কি কইছিলেন? ছফানাগরেরা …

গোস্বা

গোস্বা

এইখানে আসছিল একবার দরিয়ার তুফান, আর তো আসে না! পার্মা মরমী কান্দে, গোস্বাভরা কান্দনে কয় মরমী– “আসতেছে না ক্যান!”। ————————- সেই তুফান ভিজাইয়া গেছিল মরমীর পা, আঙুলের ফাঁকে দিয়া গেছিল কিছু বালি। আর তো আসে না, কান্দে মরমী– তুফানেরে ফিরাইয়া দেবে এ বালি কেমনে! এমনো গোস্বা পারে মরমী! তুফানের লগে গোস্বা– দরিয়ার লগে গোস্বা নাই …

চ্যারিটি বনাম বিজনেস

চ্যারিটি বনাম বিজনেস

দান-খয়রাতি বা চ্যারিটি টাইপের কামগুলারে বিজনেস বানাইয়া দিছে ডেভলাপমেন্ট ডিসকোর্স আর ক্যাপিটালিজম। এনজিওগুলার কথা ভাবেন। নন-প্রোফিট চ্যারিটি যেন, কিন্তু খুবই ভালো বিজনেস আসলে! এখন যদিও একটু পড়তির দিকে, কিন্তু অনেক ব্যবসাই তো করা হইছে। ডেভলাপমেন্ট ডিসকোর্সের লগে এনজিও বুম করার ডাইরেক্ট খাতির থাকলেও দুনিয়ার এই দিকে আদি এনজিও’র একটা মনে হয় বানাইছিলেন বেগম রোকেয়া! রঠার …