ফরহাদ মজহারের লগে বিএনপি কই যায়?

ফরহাদ মজহারের লগে বিএনপি কই যায়?

আহমদ ছফা নাকি খালেদা জিয়ারে কইছিলেন যে কারে সেক্রেটারি রাখছেন—আহমদ ছফারে চেনে না? খালেদা জিয়ার জবাব ছিলো —কী করবো, আপনারা তো আসেন না! শোনা কথা। তাই কান দিলাম। তো, এই কনভার্সেশনে খালেদা জিয়ার বুদ্ধির খবর পাই আমি; কিন্তু তারচে বড়ো খবর হইলো বিএনপির পলিটিকস্ বিষয়ে একটা প্রায় গোপন কথা; বিএনপি আহমদ ছফা টাইপের লোক দলে …

বাঙালি জাতীয়তাদের একাধিক ভার্সন বা ইতিহাস ও রাজনীতি গবেষক এবং এইসব বিষয়ে পিএইচডি লিপ্সুদের জন্য

বাঙালি জাতীয়তাদের একাধিক ভার্সন বা ইতিহাস ও রাজনীতি গবেষক এবং এইসব বিষয়ে পিএইচডি লিপ্সুদের জন্য

‘বাঙালি জাতীয়তাবাদ’র একাধিক ভার্সন আছে; অন্তত দুইটারে পরিষ্কারভাবে লোকেট করা যায়। ১৯ শতক থেকে কোলকাতায় যেই ‘বাঙালি জাতীয়তাবাদ’ ডেভল্যপ করে তাঁর থেকে বাংলাদেশ বানাইছে যেই ‘বাঙালি জাতীয়তাবাদ’ তা বহুমাত্রিকভাবে আলাদা। প্রধান পার্থক্য ‘আমার ধর্ম’ বলতে দুইটা আলাদা ধর্মকে বোঝায়; কোলকাতা কেন্দ্রীক ‘বাঙালি জাতীয়তাবাদ’ ‘আমার ধর্ম’ হিসাবে ‘হিন্দু ধর্ম’কে বুঝছিলো এবং বোঝে এবং বাংলাদেশের ‘বাঙালি জাতীয়তাবাদ’ …

ডোনেটিং মাই আইজ টু ফরহাদ মজহার

ডোনেটিং মাই আইজ টু ফরহাদ মজহার

ফরহাদ মজহার উবাচ (মানে কইলেন), রাষ্ট্রে ইসলামকে স্বীকার করতে হবে; আরো উবাচ, রাষ্ট্রে ধর্মকে স্বীকার করতে হবে। কিন্তু ‘স্বীকার’ করা দিয়া তিনি ঠিক কী কইছেন, জানেন কেউ? আমি দেখি নাই; তার মানে, উনি কইতেও পারেন, আমি জানি না। কইয়া থাকলে কেউ জানাইয়েন। কিন্তু একটা অর্থ নিশ্চই পাইতে পারি ওনার দাবির; যে, রাষ্ট্রে ইসলাম স্বীকার করা …

আরে! নিজেরা নিজেরা কী করতেছিলাম আমরা? আমরা তো সবাই ছফা!

আরে! নিজেরা নিজেরা কী করতেছিলাম আমরা? আমরা তো সবাই ছফা!

তাইলে ‘লুঙ্গিপড়া কবি’ ফরহাদ মজহারের রূপক, আর ‘ঝুঁটিবাধা পুরুষ’ ড. সলিমুল্লাহ খানের। দুইজনার আরেকটা করে নাম, দিছেন সিদ্দিকুর রহমান খান। ‘ফরহাদ মজহার’ বা ‘সলিমুল্লাহ খান’ও রূপক, প্রাইমারি রূপক; কিন্তু সমাজ এদের দিছে অর্থের মর্যাদা। সিদ্দিকুর রহমান খান প্রাইমারি রূপক ব্যবহার না কইরা সেকেন্ডারি রূপক ইউজ করছেন, এই ক্ষেত্রে উনি রূপক দিয়া অর্থে পৌঁছাইছেন। তাতে সমস্যা …

রক মনু

শাহবাগ কই যায়?*

“পাকিস্তান ডেজার্ট কি মাছলি” বা “ইন্ডিয়ান জনতা কি হনুমান” নামে দল বানাইয়া বাংলাদেশে রাজনীতি করা যাবে কি? যাবে না। নাকি আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে “ইন্ডিয়ান জনতা কি হনুমান” দলটাকে রাজনীতি করতে দেবে আর বিএনপি থাকলে “পাকিস্তান ডেজার্ট কি মাছলি”? না। এই এই নামের কোন রাজনৈতিক দল বাংলাদেশে রাজনীতি করতে পারবে না। ইস্যুটা এই না যে …

মোক্ষম মোক্ষম সব বিয়া করেন সবাই

মোক্ষম মোক্ষম সব বিয়া করেন সবাই

শীলা এবং আসিফ নজরুলকে ধন্যবাদ, এই কাপল আমাদের সমাজকে বুঝবার জন্য দরকারি ভালো একটা ইভেন্ট তৈরি করলেন। চলেন সমাজ নিয়া বোঝাবুঝিটা একটু রিনিউ করি। এই সমাজ ছিলো গুলতেকিনের সহমর্মী; শাওন এবং হুমায়ুন আহমেদকে বেশ গালাগালি করছিলো এই সমাজ। আসিফ নজরুলকে বিয়া করে শীলা এখন একান্তভাবেই হুমায়ুন আহমেদের মেয়ে হয়ে গেলো; তখনকার গুলতেকিনের মেয়ে হয়ে গেলো …