THE ISLAND-দ্য আইল্যান্ড

লাইফ ইন্স্যুরেন্স করছেন কি আপনি? করলেও কোম্পানি আপনারে কী দেবে—টাকা? কিন্তু আপনার তো দরকার আস্ত একটা হার্ট বা লিভার বা স্টোম্যাক! টাকা দিয়া কিনবেন? কিন্তু ব্লাড গ্রুপ যদি না মেলে? ডোনারের যদি এইডস্ থাকে? ওকে, টাকা আপনার; কিন্তু দরকারি বডি পার্টস না পাইলে তো লাভ নাই টাকায়! 

-------------------------

দ্য আইল্যান্ড মুভিটা এই রকম একটা কঠিন জায়গা নিয়া ডিল করে। নেক্সট জেনারেশন লাইফ ইন্স্যুরেন্স পলিসি কেমন হইতে পারে সেইটা দেখায়।

মুভি বলছে—নিউ অ্যামেরিকান ড্রিম হইলো, লিভ ফর এভার। এই ড্রিম বাস্তবে ট্রান্সলেট করবে একটা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি। ক্লায়েন্ট হইলে আপনার একটা ক্লোন বানাবে তারা, লালন-পালন করবে। কোন রোগ হইতে দেবে না, সুস্থ রাখবে পুরা। আপনার কিডনি নষ্ট হইলে আপনার সেই ক্লোনের কিডনি পাবেন আপনি। আপনার বডির প্রতিটা পার্ট রিপ্লেস করা যাবে; কেননা, আপনার ক্লোনই ফিজিক্যালি সবচে ফিট আপনার জন্য।

পুরা বিষয়টা গোপন থাকবে আপনার কাছে; আপনার যখন যা দরকার তখন তাই দেওয়া হবে; আপনার ক্লোন বিষয়ে জানানো হবে না। জানবেনই বা কেন আপনি? আপনি বার্গার খাবেন, গরুর সাথে দেখা করার কী দরকার?

তো, এমনই ক্লোনের কারখানা একটা দ্বীপে, মাটির নিচে প্লান্ট; সিকিউরড পুরাই। ক্লোনের ব্রেনে স্মৃতি দেওয়া হয়, সুখের স্মৃতি। কোন একটা সমস্যার কারণে তাঁরা এইখানে আছে; এইতো কয়দিন পরেই তাঁরা মুক্তি পাবে। মুক্তি পাবে অর্থ হইলো—ক্লায়েন্টের বডি পার্ট দরকার; ক্লোনের বডি থেকে নেওয়া হবে!

ভালোই চলছিলো; কিন্তু দুইটা ক্লোন পালাইয়া যায়। ঝামেলার শুরু হইলো। এই ঝামেলা শেষ হবে, দেখতে থাকেন…