রক মনু

কোলকাতাই সিনেমা না, কলিকাতা লইয়া সিনেমা বানান

কলিকাতার ব্যাপারে ঢাকার কিছু মুভিগোয়ারের ফেসিনেশন আছে, কোলকাতাই সিনেমা বানাইতেছেনও কিছু লোক। ডুবসাতার বা মেঘমল্লার ঐ কিসিমের সিনেমা। এমনকি মেহেরজানও এসথেটিক্যালি কোলকাতাই মাল, পলিটিক্যালি যেমনি হৌক।

আমি কই, কোলকাতাই সিনেমা না বানাইয়া কলিকাতা লইয়া সিনেমা বানান। ফেসিনেশনটা থাকলো, দুইচার দিনে এড়াইতে পারবেন না তো, বুঝি আমি; কিন্তু পোক্ত সিগনেচার রাখেন নিজের।

-------------------------

কেউ চাইলে আমারে পাইতে পারেন। আমি একটা থিম ভাবতেছি এখন। মাইকেল মধুসূদন লইয়া জটিল একটা সিনেমা বানাইতে পারেন। একটা স্কেচ দিতেছি।

মাইকেল কলিকাতার মাল না, উনি যশোরের। কলিকাতায় ওনার ফাইটটা আসলে রেশিয়াল, কতকটা কাস্টের। ধর্মরে উনি ইউজ করছেন একটা হাতিয়ার হিসাবে, আখেরে জিতছেন।

ওনার গায়ের রঙ কালা, বর্ণে কায়স্থ। মনুর রেফারেন্সে বিদ্যাসাগর কায়স্থদের কইছেন শূদ্র। কালা মাইকেল কলিকাতার ফর্সা বামুনদের মাঝে খুবই ইনফিরিয়র, তার উপর বাঙাল। কলিকাতার সুন্দর মানে যেহেতু ফর্সা তাই মাইকেলও ফর্সা মাইয়া চাইতেন। কিন্তু নিজে কালা কায়স্থ/শূদ্র বইলা ফর্সা মাইয়া পাবার আশা কম। বড়জোর ফর্সা গৌরের লগে দোস্তি বানাইতে পারছেন। ওদিকে ফর্সা বামুনরা রঙ আর আর্যামীর দেমাগ দেখান। মাইকেল এইটা শুরুতে ওভারকাম করতে চাইছেন পয়সা আর বিদ্যা দিয়া। পারেন নাই।

তখন খৃস্টান হইছেন, তাতে নয়া উইন্ডো খুলছে। তারপর ফর্সা বামুনদের উপর প্রতিশোধ লইছেন। মেঘনাদবধেও সেই প্রতিশোধেই কালা লংকানরা নায়ক ফর্সা আর্য ভিলেন।

মাইকেল খৃস্টান হইয়া এক ইউরোপিয়ান হোয়াইটের লগে পরকিয়া করছেন। পরে আরো দুই হোয়াইট মাইয়ারে বিয়া করছেন।

তাইলে দেখেন, কলিকাতার ফর্সা বামুনরা হোয়াইটের পা ধুইয়া পানি খান, সেই হোয়াইট ৩ জন মাইয়ার লগে শুইছেন মাইকেল। ফর্সা বামুনের মেইল ইগোর উপর কেমন প্রতিশোধ লইছেন মাইকেল! ফর্সা দেশী মাইয়া যে বিয়া করতে পারতেছে না, কেবল খৃস্টান হইয়া পাইলেন ৩ হোয়াইট। ধর্ম এমনে ইউজ করছেন মাইকেল।

সিনেমা হয়?

২৩ আগস্ট ২০১৭